1. admin@dailyalokithbangladeshnewstv.com : admin :
  2. patsymillington@hidebox.org : emiliosteffan51 :
  3. bellalaughlin@1secmail.org : gilbertomingay6 :
  4. themessellera@gmail.com : Sk Mizan : Sk Mizan
মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০২:৫৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নবীগঞ্জে জাতীয় উৎপাদনশীলতা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জে মসজিদ থেকে নবজাতক শিশু উদ্ধার হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে বাইসাইকেলে শোভাযাত্রা ও প্রতীকী অনশন অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জ পুলিশ লাইন্সে বিভাগীয় পদোন্নতি পরীক্ষা-২০২২ এর “ক্যাম্প প্রশিক্ষণ” অনুষ্ঠিত” নবীগঞ্জ উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় উপজেলাকে মাদকমুক্ত ও শহরকে যানজটমুক্ত করার সিদ্ধান্ত নবীগঞ্জ থানা প্রশাসনের আয়োজনে দূর্গোৎসব উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভা জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের এমপির সাথে সাবেক এমপি মুনিম চৌধুরী বাবু’র সৌজন্য সাক্ষাৎ। নবীগঞ্জ ইউএনও বদলি ও নবগত ইউএনও বরণ উপলক্ষে সংবর্ধনা হবিগঞ্জ জেলা কারাগারে সাজাপ্রাপ্ত আসামীর মৃত্যু এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনেই বরিশাল শিক্ষা বোর্ডে ৯৯২ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল

পা দিয়ে লিখে এবারও জিপিএ-৫ পেলো তামান্না,চিঠি লিখেছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইমঃ রবিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২২
  • ৯৭ বার পঠিত

নাজনীন নাবিলা, ঢাকা থেকে।

এক পায়ে লিখে এইচএসসি পরীক্ষাতেও জিপি-৫ পেয়েছেন তামান্না আক্তার নুরা। এর আগেও পিইসি, জেএসসি ও এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছিলেন তিনি।

অদম্য মেধাবী তামান্নার এক পা-ই সম্বল। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত ও একটি পা নেই। জীবনযুদ্ধে জয়ী হওয়ার লক্ষ্যে নানান প্রতিবন্ধকতা জয় করে সর্বোচ্চ ফলাফল অর্জন করেছেন তামান্না।

আজ রোববার দুপুর ১২টায় এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করলে তামান্নার কৃতিত্ব প্রকাশ পায়। তিনি যশোর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজ থেকে পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তামান্নার গ্রামের বাড়ি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের আলীপুর গ্রামে।

তামান্নার বাবার নাম রওশন আলী। ময়ের নাম খাদিজা পারভীন শিল্পী। বাবা স্থানীয় ছোট পোদাউলিয়া দাখিল মাদরাসার (নন এমপিও) বিএসসির শিক্ষক। মা গৃহিণী। তিন সন্তানের মধ্যে তামান্না সবার বড়।

তামান্নার স্বপ্ন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে বিসিএস ক্যাডার হওয়ার। কিন্তু পরিবারের আর্থিক অনটনে সেটি এখন থেমে যাওয়ার উপক্রম। স্বপ্নকে বাঁচিয়ে রাখতে ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটি চিঠিও লিখেছিলেন তামান্না।

বাঁকড়া ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ সামছুর রহমান বলেন, তামান্না আমাদের কলেজের শিক্ষার্থী। তার মেধার প্রশংসা আমাদের কলেজ শিক্ষকরা প্রায় করেন। তামান্না জন্মপ্রতিবন্ধী হয়েও নানান প্রতিবন্ধকতা জয় করেছে, দেখিয়ে দিয়েছে সমাজকে। শুধু পড়াশোনা না, তামান্না ভালো ছবিও আঁকে। এমনকি কম্পিউটার প্রযুক্তিতেও সে দক্ষ। জন্ম থেকেই তার দুটি হাত ও একটা পা নেই। অথচ একটা পা দিয়েই তামান্নার যুদ্ধ চলছে। আমি আশা রাখি সে ভবিষ্যতে অনেক ভালো কিছু করবে। তবে এখন সবচেয়ে বেশি দরকার সরকারের সহযোগিতা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর...
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

Theme Customized BY: Themes Seller